মুখের দুর্গন্ধ দূর করার ঘরোয়া উপায়!

5, 221 Views

  • Uploaded on May 13, 2017 by RMM Tv

  • কর্ম ব্যস্ততার মাঝে অনেকেই দাঁত ব্রাশ করতে সময় পাননা। মানুষের মাঝে কথা বলতে গেলে নিজেকে অপমান বোর্ধ করেন। মুকের দুর্গন্ধদের ভয়ে কথা বলতে সাহস হয় না। অনেকে বাজারের বিভিন্ন মাউথ ওয়াশ ব্যবহার করে ফল পান আবার পাননা। কিন্তু আপনার রান্না ঘরের কিছু উপাদানও প্রাকৃতিক ফ্রেশনার হিসেবে আপনার মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে পারে। সেই প্রাকৃতিক ও ঘরোয়া উপাদানগুলোর বিষয়েই চলুন জানা যাক।

    দারুচিনি
    দারুচিনি এমন আরেকটি মসলা যার ব্যাকটেরিয়ানাশক গুণ আছে এবং নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর করে। ১ টি দারুচিনির স্টিক চিবিয়ে খেতে পারেন অথবা চায়ের সাথে যোগ করতে পারেন দারুচিনি। কয়েকটি দারুচিনি পানিতে দিয়ে ফুটিয়ে নিতে পারেন, তারপর ঠান্ডা করে মাউথওয়াশ হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন।

    মৌরি
    খাবার পরে মৌরি বীজ চিবানো হয় বদহজম দূর করার জন্য। কিন্তু আপনি কী জানেন এরা চমৎকার মাউথ ফ্রেশনার হিসেবেও কাজ করে? তারা লালার উৎপাদন বৃদ্ধি করে এবং জীবাণুর দ্বারা সৃষ্ট নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর করতে পারে। এছাড়াও মৌরি ঢেঁকুর তোলা ও এসিড রিফ্লাক্স কমাতে সাহায্য করে। আপনার নিঃশ্বাসকে প্রাকৃতিকভাবে সতেজ ও দুর্গন্ধহীন করতে কিছু মৌরি চিবাতে পারেন।

    এলাচি
    মিষ্টিস্বাদের ও সুগন্ধি এলাচি নিঃশ্বাসকে মিষ্টি সজীবতা দিতে পারে। মুখে একটি এলাচ নিয়ে কয়েক মিনিট চিবাতে থাকুন, এতে নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর হবে। এছাড়াও এলাচ চা পান করতে পারেন।

    পুদিনা
    বাণিজ্যিকভাবে তৈরি বেশীরভাগ মাউথ ফ্রেশনারে পুদিনা ব্যবহার করা হয়। খাবারের স্বাদ ও সুগন্ধ বৃদ্ধি করার জন্য ব্যবহার করা হয় পুদিনা। পুদিনার শীতলিকারক গুণ আছে। কয়েকটি কাঁচা পুদিনা পাতা মুখে পুরে চিবাতে থাকুন অথবা পুদিনার চা পান করুন।

    লং বা লবঙ্গ
    রান্নার স্বাদ ও সুগন্ধ বৃদ্ধি করার জন্য ব্যবহার করা হয় লবঙ্গ। এটি প্রাচীনকাল থেকে ব্যবহার হয়ে আসছে দাঁত ব্যথা কমানোর জন্য। টুথপেস্ট ও মাউথওয়াশেও এটি ব্যবহার হয়। এটি একটি ভালো দুর্গন্ধনাশক পদার্থ। লবঙ্গে ইউজেনল নামক অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান থাকে। লবঙ্গ মুখে নিয়ে চুষলে নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর হয়।

    সাইট্রাস ফল
    কমলা, লেবু ইত্যাদি ফলগুলো লালা গ্রন্থিকে উদ্দীপিত করে এবং লালার উৎপাদনকে উৎসাহিত করে। লালা মুখের এসিডকে নিরপেক্ষ করে এবং মুখে জমে থাকা খাদ্যকণা ও মৃত চামড়া দূর করতে সাহায্য করে।

    ধনে
    পেঁয়াজ ও রসুনের মত শক্তিশালী গন্ধযুক্ত খাবার নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ সৃষ্টি করে। এই গন্ধ দূর করতে পারে ধনের সুগন্ধ। মুখের দুর্গন্ধকে এড়িয়ে চলার জন্য খাওয়ার পরে কিছু তাজা ধনে পাতা চিবিয়ে খান। আস্ত ধনে বীজ পানিতে ফুটিয়ে নিয়ে এক চিমটি লবণ যোগ করে তৈরি করে নিতে পারেন মাউথ ফ্রেশনার।
    মুখের দুর্গন্ধ দূর করার ঘরোয়া উপায়!
    Uploaded on YouTube by RMM Tv

Download মুখের দুর্গন্ধ দূর করার ঘরোয়া উপায়! Full Video

VideosTube © 2018 All rights Reserved